অনলাইন এ মোবাইল গেইম এর ক্ষতিকর দিকসমূহ

অনলাইন এ মোবাইল গেইম এর ক্ষতিকর দিকসমূহ

অনলাইনে আয় করার জন্য এখন মোবাইল ও মোবাইল গেইম অনেক জনপ্রিয় একটি মাধ্যম। আজ থেকে কয়ে মাস আগেও এটা ভাবা যেতো যে, স্কুল, কলেজ ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলবে।

২০২১ সালের জানুয়ারী মাসের ২৫ তারিখে একজন জাতীয় দৈনিক পত্রিকাতে আসছিল বিষয়টা। আমাদের দেশের ছেলেমেয়েরা করোনার সময়টাতে দিনের মধ্যে ২৪ ঘন্টায় প্রায় ১২-১৪ ঘন্টা সময় ব্যায় করে এই গেইমের পেছনে।

তাদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি সংখ্যাক খেলে হলো মোবাইল ডিভাইসের মাধ্যমে। আর এদের একটা বড় অংশ রাতের কিছু সময় বেশি এবং বাকিটা সময় দিনের বেলায় খেলে। আসলে আমাদের শরীরের অনেক বেশি ক্ষতির কারণ যা এই বয়সে এরা বুঝতে পারে না।

যুক্তরাজ্য ভিত্তিক একটি পরিসংখ্যান দেখা গেছে যে, তাদের দেশের ছেলেমেয়েরা প্রতি সপ্তাহে প্রায় ৩০ ঘন্টারও বেশি সময় গেইম খেলে থাকে। তারা অবশ্যই ট্যাব, কমপিউটার ও মোবাইলসহ আরও অন্যন্যা ডিভাইসে এসব খেলে থাকে।

 

আরো পড়ুন >> ফেইসবুকে মার্কেটিং করার ১৪টি উপায়সমূহ জানুন।

 

নিচে ক্ষতির দিকগুলো তুলে ধরার চেষ্টা করবো ইনশাআল্লাহ। আশা করি আর্টিকেলটি শেষ করে আপনি নিজেই বুঝতে পারবেন। আসলে আমাদের জন্য সবকিছুই ভালো তবে প্রয়োজনের অতিরিক্ত আবার সবকিছুই খারাপ।

যাইহোক নিচে আমি পয়েন্ট করেই বলার চেষ্টা করবো যেন বুঝতে সুবিধা হয়।

১. আসক্তি বেশির কারণে অন্যন্যা কাজে আগ্রহ কমে যায়

২. পারস্পারিক সুসম্পর্ক নষ্ট হওয়া

৩. ক্যারিয়ারের উপর বিরূপ প্রভাব

৪. চোখের ক্ষতির কারণ গেইম খেলা

৫. স্বাস্থ্যের মারাত্মক ক্ষতি হয় অতিরিক্ত খেলার কারণে

৬. মানসিক ভারসাম্য নষ্ট হয়

৭. ব্রেনের স্মৃতি শক্তি কমে যায়

৮. হতাশা বাড়ে গেমের কারণে

 

আরো পড়ুন >> অনলাইন গেমে সচেতনতা জরুরি

আরো পড়ুন >> পাবজি বা অনলাইন গেম খেলার উপকারী এবং ক্ষতিকর দিকগুলো কি কি ?

আরো পড়ুন >> ভয়ংকর ভিডিও গেম ও ইন্টারনেট আসক্তি : কোন্ পথে শিশু-কিশোররা ?

আরো পড়ুন >> পাবজি গেমের ৭টি ক্ষতিকর দিক যা সব গেমারেরই জানা উচিত 

আরো পড়ুন >> যুবসমাজ ধ্বংসের এক নতুন আতঙ্কের নাম অনলাইন গেইমস

 

1 thought on “অনলাইন এ মোবাইল গেইম এর ক্ষতিকর দিকসমূহ”

Leave a Comment