বেজবল খেলার ৫টি অসুবিধা জেনে নিন

বেজবল খেলার ৫টি অসুবিধা জেনে নিন

বেজবল খেলার ৫টি অসুবিধা নিয়ে আজকের আর্টিকেল। অনেক জনপ্রিয় একটি খেলার মধ্যে অন্যতম একটি খেলার নাম হলো এইটা।

এই খেলার অনেক প্রয়োজনীয়তা থাকলেও এর রয়েছে কিছু অসুবিধাও সেগুলো নিয়েই আমাদের আজকের আর্টিকেল।

বেজবল খেলার ৫টি অসুবিধা
বেজবল খেলার ৫টি অসুবিধা জেনে নিন

এই আর্টিকেলে যেসব বিষয়গুলো পাবেন সেগুলো হলোঃ-

বেজবল খেলার ৫টি অসুবিধা জেনে নিন

(ক) বেসবল কোন দেশের জাতীয় খেলা

(খ) বেট বল খেলা

(গ) বেসবল খেলার ইতিহাস

(ঘ) বেসবল খেলার নিয়ম

(ঙ) বেজবল খেলার নিয়ম

(চ) baseball khel ke niyam

 

নিচের এই খেলারটির কিছু অসুবিধা নিয়ে বলা হবে। আশা করি বুঝতে পারবেন।

১. আন্তরর্জাতিকভাবে প্রচার-প্রচারণা কম

২. সঠিক গাইড লাইন নেই 

৩. দেশীয় ক্রিয়াতে এর স্থান বা সুযোগ কম 

৪. প্লেয়ারদের প্রশিক্ষণের অভাব 

৫. জনপ্রিয়তা কমের কারণে আগ্রহী প্লেয়ার কম 

নিচে উপরোক্ত ৫টি পয়েন্ট বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরার চেষ্টা করা হবে ইনশাআল্লাহ।

বেজবল খেলার ৫টি অসুবিধা জেনে নিন

 

১. আন্তরর্জাতিক ভাবে প্রচার-প্রচারণা কম

অন্যান্য গেইমগুলো যেভাবে বিভিন্ন মিডিয়া প্রচার করে তেমনিভাবে এই গেইমের মানে বেইজ বলের কোন প্রচার-প্রচারণা নেই। কিছুদিন আগে বিশ্বকাপ ফুটবল খেলার জন্য বা ক্রিকেট বিশ্বকাপের জন্য যেই ধরনের প্রচার বা প্রচারণা চালানো হলো ঠিক তেমন কোন প্রচার বা প্রচারণা করতে দেখা যায় না এই খেলার সংগঠনকে।

ICC T-20 World Cup হওয়ার আগে থেকেই প্রচার করে থাকে এটা নিয়ে। এরকমভাবে অন্য কোন খেলার মাধ্যম প্রচার বা প্রচারণা করে না। বিভিন্ন অনুষ্টান এবং বিভিন্ন দেশের বিভিন্ন ধরনের স্পনসররা এখানে তারা তাদের পারফমেন্স করে থাকে।

আমাদের দেশের বিভিন্ন সংগঠন আসলে এই ধরনের প্রচার প্রচারণার কাজ করতে পারে। এখানে একটা বিষয় অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ যে, দেশীয় খেলাগুলোর চাইতে বাইরের খেলাগুলো অনেক বেশি প্রধাণ্য পায়। ইন্ডিয়ার মত এত বড় একটা দেশ অন্য খেলার চাইতে ক্রিকেটটাকে অনেক বেশি মূল্যায়ন করে থাকে।

যার কারণে অন্য কোন খেলা বেশি মূল্যায়ন পায় না। তাই আমাদের উচিত অবশ্যই নিজেদের সংস্কৃতি এবং নিজেদের দেশীয় জাতীয় খেলাগুলো আগে প্রচার ও প্রচারণা করা এবং এর পাশাপাশি অন্য খেলা নিয়ে কাজ করা। আসলে আমরা যদি নিজেদের খেলাগুলোকে নিজেইরাই প্রচার না করি তাহলে তো আন্তরর্জাতিক ভাবে এগুলো তেমন মূল্যায়ন পাবে না।

বেজবল খেলার ৫টি অসুবিধা জেনে নিন

 

২. সঠিক গাইড লাইন নেই 

আমাদের উপমহাদেশের যে সমস্ত দেশ আছে তাদের মধ্যে বাংলাদেশ, পাকিস্তান, ভারত, শ্রলংকা, নেপাল, ভূটান, মালদ্বীপ এবং দেশগুলোর মধ্যে হাতে গোনা কয়েকটা দেশের খেলা নিয়ে সময় দেওয়া হয়। বিশেষ করে বাংলাদেশ, ভারত, শ্রীলংকা ও পাকিস্তান এই কয়টি দেশ খেলায় অংশ নেয়।

এই দেশগুলো অবশ্য ক্রিকেট খেলায় বেশি অংশগ্রহণ করে থাকে। ফুটবলের মধ্যে নেপাল, ভূটান, ভারত, বাংলাদেশ এসব দেশ সাফ এশিয়া কাপে অংশ নেয় তবে আন্তর্জাতিক ভাবে এদের কোন তদারকি নেই বললেই চলে।

বেজ বলের কথায় যদি আসি তাহলে বলবো ভারতে হয়তো কিছুটা চর্চা হয় তবে বাংলাদেশ ও অন্যান্য দেশগুলোতে তেমন চর্চা হয় না বললেই চলে। এসব দেশের ভালো মানের কোন মাঠ ও জাতীয় ভাবে কোন সংস্থাও জড়িত নেই।

ভারত শেষ কয়েক বছরে ফুটবলটা ক্রিকেটের পাশাপাশি জোর দিলেও অন্যান্য দেশগুলো তেমন আগ্রহী নেই। আসলে খেলাধূলার চর্চা আসে স্কুল, কলেজন এবং পরিবেশ থেকে। বর্তমানের পরিবেশটা আসলে এমন যেখানে এসব চর্চা করার মত সময় ও সুযোগ কোনটাই নেই কারোরই।

বেজবল খেলার ৫টি অসুবিধা জেনে নিন

 

৩. দেশীয় ক্রিয়াতে এর স্থান বা সুযোগ কম 

 

৪. প্লেয়ারদের প্রশিক্ষণের অভাব 

বেজবল খেলার জন্য আমাদের যে ধরনের প্রশিক্ষণ দরকার সে ধরনের প্রশিক্ষন আমাদের দেশ তো বটেই আশে পাশের দেশগুলোতেও নেই। বাংলাদেশ ও ভারত এই দুই দেশের জনসংখ্যা বিচার বিশ্লেষণ করলে দেখা যায় যে, এরা বিভিন্ন ধরনের গেইম এ অংশ নেয়।

তবে সঠিক কোন তদারকি নেই বললেই চলে। ভারতে যদিও ক্রিকেটটাকে অনেক বেশি গুরুত্ব সহকারে দেখা হয়। মানে সেখানে IPL এর মত বড় আসর বসে প্রতি বছরই। যেখানে পুরো পৃথিবীর প্লেয়াররা আসে খেলতে।

অথচ এরকম জমকালো অনুষ্ঠানের মত করে বেজবল খেলার প্রতি কোন গুরুত্ব দেওয়া হয় না বললেই চলে।

বেজবল খেলার ৫টি অসুবিধা জেনে নিন

 

৫. জনপ্রিয়তা কমের কারণে আগ্রহী প্লেয়ার কম 

আমরা আসলে জনপ্রিয়তার পেছনে ছুটি বেশি। মানে যখন যেটার ট্রেন্ড চলে তখন সেটাই করে থাকি। বর্তমানে যেমন, ক্রিকেট খেলাকে সবাই অনেক বেশি জনপ্রিয় মনে করে থাকে। আর সবাই ক্রিকেট খেলাকেই বেশি দেখে যার কারণে ক্রিকেট খেলা শেখার ও খেলার প্রতি সবাই আগ্রহী।

আসলে আমাদের আগ্রহী হওয়ার পেছনে তাদের জীবন যাত্রা ও তাদের আচার ও আচরণ অনেক বেশি প্রভাব বিস্তার লাভ করে থাকে। গ্রামের ছোট ছোট বাচ্চারাও ক্রিকেট প্লেয়ারদের নাম জানে কারণ তারা বিভিন্ন প্রচার মাধ্যমে এসব নামগুলো শুনে থাকে।

টিভি বলেন আর অনলাইন মিডিয়া বলেন যে কোন মাধ্যমেই তাদের নাম শোনা যায়। যার কারণেই ছোট ছোট বাচ্চা থেকে শুরু করে সবাই এসব হতে আগ্রহী হয়ে থাকে। একটা সময় ছিল যখন সবাই গান গাইতো সেটা এখন কমে গেলেও এখন নতুন ট্রেন্ড চালু হয়েছে।

বেজবল খেলার ৫টি অসুবিধা জেনে নিন

 

আজ থেকে বেশ কয়েক বছর আগে সবাই ফুটবল খেলতে চাইতো। পাড়ার মাঠে ও স্কুলের মাঠে এই খেলাটির অনেক বেশি দাম ও অনেক বেশি মানুষ খেলতো এটা। বর্তমানে যদিও সেটা দেখা যায় না তবে অন্য গেইমগুলোর প্রতি অনেক বেশি আগ্রহী সবাই।

বেজবল এমন একটি গেইম যেটার প্রচার নেই বললেই চলে। আমি নিজেও যখণ আর্টিকেলটি লিখছি তার আগেও আমি পুরোপুরি এই খেলাটি সম্পর্কে এতটা বেশি জানতাম না। নিজে খেলা তো দুরের কথা তথ্য জানার জন্য আমি অনলানে সার্চ দিয়েও যথেষ্ট তথ্য পাই নাই এই খেলাটি সম্পর্কে।

তবে আমি ধারণা করি সঠিক গেইম ও সঠিক তদারকির মাধ্যমে এক সময় না এক সময় এই খেলাটি অনেক বেশি জনপ্রিয় হবে। এখন যদিও অন্য গেমের প্রতি আগ্রহী মানুষ তবে একটা সময় আসবে তখন এই খেলাটিও অনেক বেশি মানুষ খেলবে।

>> বেজবল খেলার ৫টি অসুবিধা জেনে নিন

উপরের কথাগুলো আসলে নিজে থেকে উপলব্ধি করে বলা। কারণ এই খেলাটি সম্পর্কে যথেষ্ট তথ্য ইন্টারনেটে নেই। আর যথেষ্ট তথ্য না থাকলে আসলে তেমন কিছু বলা যায় না। আশা করি আমার দেওয়া তথ্য গুলো অনলাইন বা যারা জানে তাদের মতই হবে।

বেজবল খেলার ৫টি অসুবিধা জেনে নিন

 

অনেক অনেক বেশি ধন্যবাদ মূল্যাবান সময় নিয়ে আর্টিকেলটি পড়ার জন্য। আশা করি এভাবেই পাশে থাকবেন এবং নিয়মিতই আমদের ওয়েবসাইটটি ভিজিট করবেন।

Leave a Comment